রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

আনন্দ উৎসবে রাজশাহীতে জন্মাষ্টমী উদযাপন

[print_link]

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীতে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা, ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে ভগবান শ্রী কৃষ্ণের ৫২৪৮তম জন্মবার্ষিকী ও শুভ জন্মাষ্টমী উদযাপন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে শুক্রবার সকালে শহরের একাধিক মন্দির কমিটির উদ্যোগে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি মহানগরীর আলুপট্টি মোড় থেকে বের হয়ে নগরের প্রধান শহর প্রদক্ষিণ শেষে দিগন্ত পুজা মন্দির প্রাঙ্গনে গিয়ে শেষ হয়। শোভযাত্রায় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক নেতৃবৃন্দসহ শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত সনাতন ধর্মাবলম্বীরা অংশগ্রহণ করেন।

শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য আশীষ তরু সরকার অর্পন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ বোয়ালিয়া থানার সভাপতি হৃদয় ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক সুমন কুমার ঘোষ, শাহমখদুম থানার সাধারণ সম্পাদক শুভ, মহানগর পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রতন পাল, খেতুর ধাম ট্রাষ্টের সদস্য রতন দাস, পুজা উদযাপন পরিষদের নেতা স্বপন রায়, লাঠিয়াল মন্দির কমিটির পাপ্পু সরকার, শ্রী রক্ষা কালি মাতার মন্দির কমিটির সভাপতি আইনজীবী শোভন বিশ্বাস, দিগন্ত পুজা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুমন তরফদার মিলন, সর্বজয়ী পুজা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাজন ঘোষ, উৎসর্গ পুজা মন্দির কমিটির দেবাশীষ সাহা, শিবালয় মন্দির কমিটির ,বিমান চক্রবর্তী, ত্রিনয়নী পুজা মন্দির কমিটির অভি দাস, মানা বাগচির সুব্রত সাহা, সমর দাস প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সনাতন শাস্ত্র অনুসারে-দুষ্টের দমন ও শিষ্টের লালন করতেই পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণ এ পৃথিবীতে আবির্ভূত হন। অত্যাচারীর বিরুদ্ধে দুর্বলের অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং শান্তিহীন পৃথিবীতে শান্তি আনতেই শান্তিদাতা শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব। তার শিক্ষা হলো-অন্যায়কে পরাভূত করে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা। তার জন্মের সময় এ বিশ্বব্রহ্মাণ্ড পাপ ও অরাজকতায় পরিপূর্ণ ছিল। নানা ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে শ্রীকৃষ্ণ মানব জাতির কাছে জীবন ধারণের অনন্য উদাহরণ রেখে গেছেন।

আরোও

আলোচিত সংবাদ

error: Content is protected !!