রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

নিখোঁজের ১১ দিন পর কলেজ ছাত্রের গলিত লাশ উদ্ধার

[print_link]

রাজিব হাসান নিপু, টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলায় নিখোঁজ হওয়ার ১১ দিন পর কলেজ ছাত্র আরিফ মিয়ার (২১) মরদেহ(কঙ্কাল) উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বিকেলে পার্শ্ববর্তী মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার তিল্লী ব্রিজের নিচ থেকে মরদেহটি(কঙ্কাল) উদ্ধার করা হয়।

নিহত আরিফ নাগরপুর সদর ইউনিয়নের নঙ্গিনাবাড়ী গ্রামের সৌদি প্রবাসী হোসেন মিয়ার ছেলে। নিহত আরিফ টাংগাইল সরকারি এমএম আলী কলেজের বিএ (অনার্স) প্রথম বর্ষের ছাত্র।

এ ব্যাপারে নাগরপুর থানায় নিখোঁজ হওয়ার দুইদিন পর (১০ আগস্ট) নিহতের চাচা হাসান মিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,গত সোমবার(৮ ই আগস্ট) বাড়ি থেকে আরিফ তার চাচাত ভাই জাহাঙ্গীরের সাথে মানিকগঞ্জের উদ্দেশ্যে তার মোটর সাইকেল নিয়ে বাসা থেকে বের হয়। তারপর নিহন আরিফের চাচাতো ভাই জাহাঙ্গীর ফিরে আসলেও আরিফ আর ফিরে আসেননি।

শুক্রবার (১৯ আগস্ট)আরিফের চাচাতো ভাইকে গ্রেফতার করে নাগরপুর থানা পুকিশ। গ্রেফতার হবার পর জাহাঙ্গীর তার স্বীকারোক্তিতে বলে, সে পালসার মোটরসাইকেলটি বিক্রি করে দিয়েছে এবং আরিফকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে হত্যা করে একটি বস্তার ভিতর ভরে এসিড দিয়ে ব্রিজের নিচে ফেলে দিয়ে এসেছে । পরে আরিফের মরদেহ কঙ্কালটি মানিকগঞ্জ জেলায় সাটুরিয়া থানার তিল্লী ব্রিজের নিচ থেকে পুলিশ উদ্ধার করে।

এ ব্যপারে নাগরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, শুক্রবার সকালে জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিকভাবে জাহাঙ্গীর হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করেছে। শনিবার (২০ আগস্ট) তাকে আদালতে উপস্থাপন করা হবে।

আরোও

আলোচিত সংবাদ

error: Content is protected !!