রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

রাজস্ব বাড়াতে মদ পানের প্রতিযোগিতা

[print_link]

আগের বছরগুলো থেকে সম্প্রতি মদ পানের পরিমাণ কমে গিয়েছে জাপানে। এতে ব্যাপকভাবে রাজস্ব হারাচ্ছিল দেশটি। তবে রাজস্ব বাড়ানোর লক্ষ্যে পূর্ব এশিয়ার দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে মদ পানের একটি প্রতিযোগিতা চালু করা হয়েছে।

জাপানের ন্যাশনাল ট্যাক্স এজেন্সি (এনটিএ) এ প্রতিযোগিতা চালু করেছে।

যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘সেক ভিভা’।

এনটিএর এই প্রতিযোগিতা চলবে ৯ সেপ্টেস্বর পর্যন্ত। প্রতিযোগিতায় ২০-৩৯ বয়সের প্রতিযোগীরা দেশটির মদ শিল্পের ব্যবসা বাড়াতে ও মদ পান বৃদ্ধিতে করণীয়ের জন্য পরামর্শ দিতে পারবেন।

এ প্রতিযোগিতা নিয়ে জাপানের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জিজি জানায়, মদের নতুন পণ্য ও ডিজাইন এবং বাড়িতে মদ পান প্রচারের উপায়গুলো বলতে পারবেন প্রতিযোগীরা।

এনটিএর তথ্য মতে, ১৯৯৫ এর দিকে প্রতি বছর একজন জাপানি গড়ে প্রতি বছর ১০০ লিটার মদ পান করতো। তবে ২০২০ সালে এটি ৭৫ লিটারে নেমে এসেছে। এতে করে রাজস্ব ক্ষতির মুখে পড়েছে জাপান। এমনকি মদ বিক্রি হ্রাস জাপানের বাজেটকে আঘাত করেছে; যা ইতিমধ্যেই ২৯০ মিলিয়ন ইউরোর সমপরিমাণ অর্থের ঘাটতিতে রয়েছে।

২০২০ সালে জাপানের মোট বাজেটের এক দশমিক সাত শতাংশ যোগান এসেছিল মদ শিল্প থেকে। আর ২০১১ তে এটি ছিল তিন শতাংশ ও ১৯৮০ সালে পাঁচ শতাংশ।

জাপান টাইমসের তথ্য মতে, বর্তমানে জাপানে মদ বিক্রির পরিমাণ ৩১ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন।

এ দিকে জাপানে মদের সঙ্গে সঙ্গে বিয়ার পানের পরিমাণও কমেছে। দেশটিতে বিয়ারের বিক্রি কমেছে ২০ শতাংশ।

বিয়ার প্রস্তুককারক কোম্পানি কিরিন ব্রেওরির তথ্য মতে, ২০২০ সালে গড়ে প্রতি বছর ৫৫ বোতল করে বিয়ার পান করতো জাপানিরা। তবে ২০২১ সালে তা কমেছে ৯ দশমিক এক শতাংশ।

আরোও

আলোচিত সংবাদ

error: Content is protected !!